ভারতে ফের চালু হচ্ছে আন্তর্জাতিক ফ্লাইট, বাংলাদেশসহ ১৪ দেশ নিষিদ্ধ

  |  Friday, November 26th, 2021 |  10:10 pm
ভারতের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের পর্যবেক্ষণের কারণে ‘এয়ার বাবল’ চুক্তির অধীনে শিগগিরই চালু হচ্ছে না ভারত-বাংলাদেশ ফ্লাইট। পররাষ্ট্রসচিব মাসুদ বিন মোমেন রবিবার (২২ আগস্ট) সন্ধ্যায় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এ তথ্য জানান। ফলে চিকিৎসাসহ নানা কারণে উভয় দেশে চলাচলকারী যাত্রীদের অনিশ্চয়তা আরো বাড়ল। বাংলাদেশ বেসামরিক বিমান চলাচলক কর্তৃপক্ষের (বেবিচক) চেয়ারম্যান মো. মফিদুর রহমান বলেন, ‘বাংলাদেশ থেকে ফ্লাইট চালুর বিষয়ে ভারত এরই মধ্যে আগ্রহ প্রকাশ করে আমাদের চিঠি দিয়েছে। আমরাও আগ্রহ প্রকাশ করে মহামারির মধ্যে স্বাস্থ্যবিধি মেনে ফ্লাইট পরিচালনাসহ কিছু শর্তের কথা জানিয়েছি। তারা এখনো সে বিষয়ে কিছু জানায়নি।’ তিনি বলেন, ‘আশা করছি, দুই দেশ শর্ত সাপেক্ষে ফ্লাইট পরিচালনাসহ সার্বিক বিষয়ে একমত হলে দ্রুত বাংলাদেশ থেকে ভারতে ফ্লাইট পরিচালনা করা যাবে। তবে এয়ারলাইনসগুলোকে বলা হয়েছে, তারা যেন ভারতে ফ্লাইট পরিচালনার প্রস্তুতি নিয়ে রাখে।’ এয়ার বাবলের আওতায় ২০ আগস্ট থেকে বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে ফ্লাইট চলাচল শুরু হবে—এমনটিই জানিয়েছিলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন। পরে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনস ২২ আগস্ট থেকে ফ্লাইট চালানোর ঘোষণাও দিয়েছিল। পরে তা স্থগিত করা হয়। আগামী ২৬ আগস্ট স্পাইসজেট এবং ২৭ আগস্ট থেকে ইন্ডিগোর ফ্লাইট চালুর কথা ছিল। করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের কারণে এ বছরের এপ্রিলে বাংলাদেশ ভারতের সঙ্গে ফ্লাইট চলাচল স্থগিত করে। তবে পরিস্থিতির উন্নতির সঙ্গে সঙ্গে দুই দেশের মধ্যে ফ্লাইট চালুর বিষয়ে আলোচনা শুরু হয়। গত ৪ আগস্ট ভারতের বেসামরিক বিমান চলাচল অধিদপ্তরকে (ডিজিজিএ) এয়ার বাবল চুক্তির আওতায় ১১ আগস্ট থেকে ফ্লাইট ফের শুরুর অনুমোদন চেয়ে একটি চিঠি দেয় বেবিচক।

আগামী ১৫ ডিসেম্বর থেকে ফের আন্তর্জাতিক ফ্লাইট শুরু করতে যাচ্ছে  ভারত। তবে বাংলাদেশসহ ১৪ টি দেশের আন্তর্জাতিক ফ্লাইটের ওপর স্থগিতাদেশ এখনও বহাল রেখেছে দেশটির সরকার। পিটিআই ও হিন্দুস্তান টাইমস এ খবর জানিয়েছে।

শুক্রবার (২৬ নভেম্বর) সরকারের এক জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা এ সম্পর্কে ভারতের সংবাদমাধ্যম হিন্দুস্থান টাইমসকে বলেন, ‘আগামী ১৫ ডিসেম্বর থেকে আন্তর্জাতিক ফ্লাইট চলাচল স্বাভাবিক হচ্ছে ভারতে। তবে বাংলাদেশ, সিঙ্গাপুর, বতসোয়ানা, চীন, মরিশাস, নিউজিল্যান্ড, জিম্বাবুয়ে, সাউথ আফ্রিকা, ব্রাজিল, ফিনল্যান্ড, নেদারল্যান্ডস, জার্মানি, ফ্রান্স ও যুক্তরাজ্যের সঙ্গে বিমান যোগাযোগে স্থগিতাদেশ আপাতত বহাল থাকবে।’

ওই কর্মকর্তা আরও জানান, সম্প্রতি করোনাভাইরাসের একটি নতুন রূপান্তরিত ধরন শনাক্ত হয়েছে এবং আশঙ্কা করা হচ্ছে- এই ধরনটি অন্যান্য পরিবর্তিত ধরনের তুলনায় অনেক বেশি সংক্রামক ও টিকা প্রতিরোধী। এই বিষয়টিকে গুরুত্ব দিয়েই ১৪ দেশের সঙ্গে বিমান যোগাযোগ বিষয়ক স্থগিতাদেশে কোনো পরিবর্তন আনা হয়নি।

বর্তমানে করোনায় দৈনিক সংক্রমণ-মৃত্যু কমে যাওয়া ও টিকাদান কর্মসূচির গতি বাড়ার ফলে করোনা বিষয়ক বেশ কিছু বিধিনিষেধ শিথিল হচ্ছে ভারতে। আগামী ১৫ ডিসেম্বর থেকে আন্তর্জাতিক ফ্লাইট পুনরায় চালুর সিদ্ধান্তও তারই অংশ।