সাম্প্রদায়িক বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করলে কঠোর হস্তে দমন করবে আ.লীগ: ওয়াসিকা খান এমপি

 রিয়াদুল ইসলাম রিয়াদ, বাঁশখালী প্রতিনিধিঃ |  Sunday, October 17th, 2021 |  10:07 pm

 

 

কেউ ধর্মীয় সম্প্রীতিতে আঘাত করে সাম্প্রদায়িক বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করলে তা কঠোর হস্তে দমন করা হবে বলে মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের অর্থ ও পরিকল্পনা বিষয়ক সম্পাদক ওয়াসিকা আয়শা খান এমপি।

রবিবার (১৭ অক্টোবর) দুপুরে আ.লীগের প্রতিনিধি দলের পক্ষে থেকে চট্টগ্রামের বাঁশখালী উপজেলার দৃর্বত্তদের হামলায় ক্ষতিগ্রস্ত মন্দির পরিদর্শনের সময় তিনি এসব কথা বলেন।

এ সময় তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার সরকার যেকোনো মূল্যে অসাম্প্রদায়িক নীতির সুরক্ষা দিতে বদ্ধপরিকর । বর্তমান সরকার ধর্ম নিরপেক্ষ ও শান্তিতে বিশ্বাসী। এই সরকারের আমলে হিন্দু মুসলমানসহ সব ধর্মের মানুষ একে অপরের উৎসব অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত স্থাপন করেন। কেউ যদি ধর্মীয় সম্প্রীতি বিনষ্ট করতে চেষ্টা করে তাহলে তা কঠোর হস্তে দমন করবে আওয়ামীলীগ সরকার।

তিনি আরও বলেন, কতিপয় ব্যক্তি বা গোষ্ঠী সাম্প্রদায়িক চেতনা ভুলন্ঠিত করার মাধ্যমে সরকারের ভাবমূর্তি বিনষ্ট করার ষড়যন্ত্রে লিপ্ত রয়েছে। ওই কুচক্রীমহল সারাদেশে জাতিগত ও ধর্মীয় বিদ্বেষ সৃষ্টি করে ফায়দা লুটতে চায়। কিন্তু সরকার ও প্রশাসনের কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণের ফলে সে চেষ্টা ব্যর্থ হয়েছে।

এসময় প্রতিনিধি দলের পক্ষে থেকে সবাইকে ধর্মীয় সম্প্রীতি ও শান্তি-শৃঙ্খলা বজায় রাখার জন্য অনুরোধ করা হয়।

ওয়াসিকা আয়শা খানের নেতৃত্বাধীন প্রতিনিধি দলে চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোসলেম উদ্দীন এমপি, সাধারন সম্পাদক মফিজুর রহমান, বাঁশখালী উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোস্তাফিজুর রহমান চৌধুরী এমপি, দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক জাফর আহমেদ, সহ দপ্তর সম্পাদক বিজয় কুমার বড়ুয়া, শ্রম বিষয়ক সম্পাদক খোরশেদ আলম, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি অধ্যাপক তাজুল ইসলাম, মুজিবুল হক চৌধুরী, এড. শাহাদত আলম, ইয়াছিন তালুকদার, জিল্লুর করিম শরীফি,এড. তোফাইন বিন হাসান, হামিদ উল্লাহ হামিদ, আকতার হোসাইন সহ অন্যন্যরা উপস্থিত ছিলেন

এসময় প্রতিনিধি দলের পক্ষে থেকে দৃর্বত্তদের হামলায় ক্ষতিগ্রস্ত বাঁশখালী উপজেলার চাম্বল ইউনিয়নের জেলে পাড়া বুড়াখালী মন্দির, শেখেরখীল নাপোড়া সার্বজনীন কালী বাড়ী মন্দির পরিদর্শন করে, ক্ষতিগ্রস্ত পরিবার ও আহতদের খোজ খবর এবং সার্বিক নিরাপত্তার ব্যবস্থা করেন।